বাংলাদেশের মোট ব্যাংক সংখ্যা

বাংলাদেশের মোট ব্যাংক সংখ্যা
——————————–
প্রিয় পাঠক সবাই কেমন আছেন। আশা করি আল্লাহর রহমতে সবাই ভাল আছেন। আজকে আমরা আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি বাংলাদেশের মোট ব্যাংক সংখ্যা কতগুলি সে বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করতে। অনেকে চাকরির ক্ষেত্রে এবং জানার ক্ষেত্রে এই প্রশ্নগুলি সচারাচার সার্চ করে থাকে, তাদের জন্যই মূলত আজকের এই পোস্টটি। চলুন দেখে না যাক বাংলাদেশে মোট কতগুলি ব্যাংক রাষ্ট্রীয় ও বেসরকারি মালিকানাধীন ব্যাংক রয়েছে ।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী বাংলাদেশে সবমিলিয়ে ৫৭+৬ = ৬৩ টি ব্যাংক আছে। কোন ধরণের ব্যাংক কতটি চলুন জেনে নেই। বর্তমানে দেশে প্রধানত দুই ধরনের ব্যাংক রয়েছে।
1. তফসিলী ব্যাংক (৫৭)
2. অ-তফসিলী ব্যাংক (৬)
তফসিলী ব্যাংকঃ যে সকল ব্যাংক কেন্দ্রীয় ব্যাংকের শর্তসমূহ মেনে নিয়ে এর তালিকায় অন্তর্ভূক্ত হয় তাকে তফসিলী ব্যাংক বলে । তফসিলী ব্যাংকগুলো ব্যাংক কোম্পানী অ্যাক্ট, ১৯৯১ (সংশোধিত ২০০৩) এর অধীনে কাজ করে। দেশে বর্তমানে ৫৭ টি তফসিলী ব্যাংক আছে। তফসিলী ব্যাংকগুলো নিম্নরুপ হয়ে থাকে।
1. বাণিজ্যিক ব্যাংক (৫৫)
2. বিশেষায়িত ব্যাংক (২)
বাণিজ্যক ব্যাংকঃ যে ব্যাংক জনগনের সঞ্চিত অর্থ আমানত হিসেবে রাখে এবং ব্যবসা-বাণিজ্যে ও শিল্প প্রতিষ্ঠানকে স্বল্প মেয়াদী ঋণ দেয় তাকে বাণিজ্যিক ব্যাংক বলে। এসব ব্যাংককে স্বল্প মেয়াদী ঋণের ব্যবসায়ীও বলা হয়। বাংলাদেশে দুই ধরনের বাণিজ্যিক ব্যাংক আছে।
1. রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংক (৬)
2. ব্যক্তিমালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংক (৪০)
3. বিদেশী বাণিজ্যিক ব্যাংক (৯)
রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংকঃ যে সকল বাণিজ্যিক ব্যাংক সরকারী উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত বা সরকার কর্তৃক জাতীয়করণকৃত তাকে রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংক বলে। রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংক ৬ টি।
১। সোনালী ব্যাংক লিমিটেড
২। অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড
৩। রূপালী ব্যাংক লিমিটেড
৪। জনতা ব্যাংক লিমিটেড
৫। বেসিক ব্যাংক লিমিটেড
৬। বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক লিমিটেড
ব্যক্তিমালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংকঃ যে সকল বাণিজ্যিক ব্যাংক জনগনের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত এবং জনগন কর্তৃক পরিচালিত হয় তাকে ব্যক্তিমালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংক বলে। ব্যক্তিমালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংক রয়েছে মোট ৪০ টি। এগুলোকে আবার দুই ভাগে করা যায় ।
১। প্রথাগত ব্যক্তিমালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংক (৩২)
২। ইসলামী শরীয়াহ ভিত্তিক ব্যক্তিমালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংক (৮)
৩২ টি প্রথাগত ব্যক্তিমালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংকের তালিকা নিম্নরূপ।
১। ঢাকা ব্যাংক লিমিটেড
২। ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেড
৩। পূবালী ব্যাংক লিমিটেড
৪। ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড
৫। ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড
৬। এবি ব্যাংক লিমিটেড
৭। ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড
৮। উত্তরা ব্যাংক লিমিটেড
৯। ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড
১০। মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক
১১। যমুনা ব্যাংক লিমিটেড
১২। প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড
১৩। স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক লিমিটেড
১৪। ইস্টার্ণ ব্যাংক লিমিটেড
১৫। আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেড
১৬। দি সিটি ব্যাংক লিমিটেড
১৭। এনসিসি ব্যাংক লিমিটেড
১৮। মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেড
১৯। প্রাইম ব্যাংক লিমিটেড
২০। সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেড
২১। ওয়ান ব্যাংক লিমিটেড
২২। বাংলাদেশ কমার্স ব্যাংক লিমিটেড
২৩। ব্যাংক এশিয়া লিমিটেড
২৪। এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক লিমিটেড
২৫। এনআরবি ব্যাংক লিমিটেড
২৬। এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড
২৭। মেঘনা ব্যাংক লিমিটেড
২৮। ফার্মারস ব্যাংক লিমিটেড
২৯। মধুমতি ব্যাংক লিমিটেড
৩০। সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার এন্ড কমার্স ব্যাংক লিমিটেড
৩১। মিডল্যান্ড ব্যাংক লিমিটেড
৩২। সীমান্ত ব্যাংক লিমিটেড
৮ টি ইসলামী শরীয়াহ ভিত্তিক ব্যক্তিমালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংকের তালিকা নিম্নরূপ।
১। ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড
২। আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড
৩। ফার্স্ট সিকিউরিটিজ ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড
৪। আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক লিমিটেড
৫। শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড
৬। এক্সপোর্ট ইম্পোর্ট ব্যাংক অফ বাংলাদেশ লিমিটেড
৭। সোশ্যাইল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড
৮। ইউনিয়ন ব্যাংক লিমিটেড
৯ টি বিদেশী বাণিজ্যিক ব্যাংকের তালিকা নিম্নরূপ।
১। স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক লিমিটেড
২। হংকং সাংহাই ব্যাংকিং কর্পোরেশন (এইচএসবিসি)
৩। সিটিব্যাংক এনএ (ন্যাশনাল অ্যাসোসিয়েশন)
৪। কমার্শিয়াল ব্যাংক অব সিলন
৫। স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়া
৬। হাবিব ব্যাংক লিমিটেড
৭। ন্যাশনাল ব্যাংক অব পাকিস্তান
৮। ওরি ব্যাংক
৯। ব্যাংক আলফালাহ্
বিশেষায়িত ব্যাংকঃ বিশেষ খাতের উন্নয়নের জন্য যে সব ব্যাংক প্রতিষ্ঠা লাভ করে তাকে বিশেষায়িত ব্যাংক বলে। রাষ্ট্রায়ত্ত বিশেষায়িত ব্যাংক ২ টি।
১। বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক (রাষ্ট্রায়ত্ত)
২। রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক (রাষ্ট্রায়ত্ত)
অ-তফসিলী ব্যাংকঃ যে সকল ব্যাংক কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নিয়ম-নীতি মেনে চলার শর্তে এর তালিকায় অন্তর্ভূক্ত হয় না তাকে অ-তফসিলী ব্যাংক বলে। দেশে ৬ টি অ-তফসিলী ব্যাংক রয়েছে।
1. আনসার ভিডিপি উন্ন্য়ন ব্যাংক (রাষ্ট্রায়ত্ত)
2. কর্মসংস্থান ব্যাংক (রাষ্ট্রায়ত্ত)
3. প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক (রাষ্ট্রায়ত্ত)
4. জূবিলী ব্যাংক
5. গ্রামীণ ব্যাংক (আধা-সরকারী)
6. পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক (রাষ্ট্রায়ত্ত)